আলোচিত খবর

অর্পিতার ফ্ল্যাট থেকে মিলল ২১ কোটি ২০ লাখ নগদ, ৭৯ লাখের গয়না

শুধু টাকা আর টাকা! শুক্রবার সন্ধ্যায় দক্ষিণ কলকাতার

অভিজাত আবাসনে অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের ফ্ল্যাটে ঢুকে ‘টাকার পাহাড়’

দেখে হাঁ হয়ে গিয়েছেন ইডির কর্মকর্তারা। কোটি কোটি নগদ টাকাই শুধু নয়, উদ্ধার করা হয়েছে লক্ষাধিক টাকার গয়না, বিদেশি মুদ্রাও। এমনকি টাকার স্তূপের মধ্যেই পাওয়া গিয়েছে উচ্চশিক্ষা দফতরের খাম! ইডি সূত্রে এমনটাই জানা গিয়েছে। সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, অর্পিতার ফ্ল্যাট থেকে মোট ২১ কোটি ২০ লক্ষ নগদ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। পাশাপাশি ৭৯ লক্ষ টাকার গয়না ও ৫৪ লক্ষ টাকার বিদেশি মুদ্রাও বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। এত পরিমাণ সম্পত্তি ঘিরে শোরগোল পড়ে গিয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যা

থেকে টাকা গোনার যন্ত্র আনা হয় অর্পিতার ফ্ল্যাটে। ইতিমধ্যেই আটক করা হয়েছে অর্পিতাকে। শুক্রবার সকাল সাড়ে সাতটা নাগাদ শিল্পমন্ত্রী তথা প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের নাকতলার বাড়িতে হানা দেয় ইডি। সেই সময় থেকে শনিবার সকাল ১০টা পর্যন্ত টানা প্রায় ২৭ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করেন তদন্তকারীরা। এর পরই গ্রেফতার করা হয় পার্থকে। প্রায় এই সময়ই আটক করা হয় অর্পিতাকে। অর্পিতা মন্ত্রীর ‘ঘনিষ্ঠ’ বলে দাবি করেছে ইডি। কী ভাবে পার্থর সঙ্গে আলাপ হয় অর্পিতার? ইডির দাবি, এক প্রোমোটারের মাধ্যমে সাত বছর আগে পার্থর সঙ্গে আলাপ হয় অর্পিতার। এর পর থেকেই দু’জনের মধ্যে ‘ঘনিষ্ঠতা’ বাড়ে। ইডি সূত্রে খবর, পার্থর সঙ্গে তাঁর ‘পারিবারিক সম্পর্ক’ বলেও জেরায় দাবি করেছেন অর্পিতা। জানা গেছে, প্রথমে মডেলিং দিয়ে তিনি কেরিয়ার শুরু করেন। পরে কয়েকটি বাংলা ছবিতে অভিনয় করেছেন। দক্ষিণ কলকাতার এক দুর্গাপুজো ক্লাবের বিজ্ঞাপনে মডেল হিসাবে দেখা গিয়েছে অর্পিতাকে। বেলঘরিয়ার দেওয়ানপাড়ায় বাড়ি অর্পিতার। তাঁর মা মিনতি মুখোপাধ্যায় বলেছেন, ‘‘মেয়ে বাইরেই থাকত। তবে মাঝেমধ্যে বেলঘরিয়ার এই বাড়িতে আসত। সপ্তাহে এক দিন-দু’দিন আসত। ও সিনেমা, সিরিয়াল করেছে। এর পাশাপাশি প্রযোজনা সংস্থার সঙ্গেও যুক্ত ছিল আমার মেয়ে।ও চাকরি পেয়েও চাকরি করতে চায়নি।’’ সুত্র: আনন্দবাজার।

Related Articles

Back to top button