আলোচিত খবর

শিশু সন্তানকে বাঁচাতে আগুনে ঝাঁপ দিলেন মা

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় অগ্নিদগ্ধ হয়ে ৬ মাস বয়সী এক কন্যা

শিশুর মৃত্যু হয়েছে। এ সময় শিশুটিকে বাঁচাতে তার মা জলন্ত

আগুনে ঝাঁপিয়ে পড়লে দগ্ধ হন। তবে সন্তানকে বাঁচাতে পারেননি তিনি। পরে স্থানীয়রা এসে সঙ্গাহীন অবস্থায় শিশুটির মাকে উদ্ধার করে কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করেন। সোমবার বিকেল সাড়ে চারটার দিকে উপজেলার মহিপুর থানার ধুলাসার ইউপির পশ্চিম চাপলী গ্রামে এ অগ্নিকাণ্ড ঘটে। মৃত শিশু সামিয়া গ্রামের বাবু শেখের মেয়ে। স্থানীয় এলাকাবাসী ও স্বজনরা জানান, বিকেলে শিশুটিকে বসতঘরে ঘুম পাড়িয়ে বাড়ির পাশেই কাজ করছিলেন মা চম্পা বেগম। কাজের সময় হঠাৎ বাড়ির মধ্যে গোল পাতার

ছাউনি দেয়া বসত ঘরে ধোয়া দেখে দৌঁড়ে ছুটে আসেন তিনি। এসময় ঘরের মধ্যে আগুন দেখে সন্তানকে বাঁচাতে জলন্ত আগুনে ঝাঁপিয়ে পড়েন। এতে তিনিও দগ্ধ হলে তার মুখমন্ডলসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ঝলসে যায়। এছাড়া আগুনে পুড়ে বসত ঘরটি সম্পূর্ণ পুড়ে যায়। এদিকে ৬ মাস বয়সী কন্যা শিশুর আগুনে পোড়া লাশ দেখে গোটা এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। স্বজনদের আহাজারিতে ভারি হয়ে উঠে পরিবেশ। অশ্রুসিক্ত হয়েছেন অনেকেই। তবে কি কারণে বসত ঘরে অগ্নিকাণ্ড ঘটেছে তা নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ। মহিপুর থানার ওসি খন্দকার আবুল খায়ের জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে এসেছি। যতটুকু জানতে পেরেছি ৬ মাসের শিশুকে ঘুম পাড়িয়ে তার মা ৫ বছর বয়সী আর এক ছেলে শিশুকে ঘরে রেখে বাড়ির পাশে কাজ করছিলেন। আর ঘরে থাকা সেই ছেলে শিশুটি দিয়াশলাই নিয়ে খেলা করছিলো। আমরা আগুনের সূত্রপাত জানার চেষ্টা করছি। পরবর্তী আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

Related Articles

Back to top button