দেশের-খবর

পাঁচ মিনিট নারায়ণগঞ্জ শহরে দাঁড়াতে পারবে না: শামীম ওসমান

ত্বকী হত্যা নিয়ে প্রেস কনফারেন্স করবেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের

সাংসদ শামীম ওসমান। তিনি বলেন, ‘শুধু আল্লাহ খোদার

পথে চলে গেছি, ধৈর্য্য ধরি। আল্লাহ ধর্য্যশীলদের পছন্দ করেন

এবং ক্ষমাকারীকে পছন্দ করে। ক্ষমাও করছি, ধৈর্য্যও ধরছি। কিন্তু আল্লাহ এটাও বলছে, নাকের বদলে নাক, চোখের বদলে চোখ আর জানের বদলে জান। সবই কিন্তু এলাও আছে, ক্ষমাকারীকে বেশি পছন্দ করে বলে ওইটাই বেছে নিয়েছি। যদি আগেরটা বেঁছে নেই ৫ মিনিট নারায়ণগঞ্জ শহরে দাঁড়াতে পারবে না কেউ। এটা আমরা লাঠির জোড় দিয়ে করবো না, জনগণের শক্তি দিয়েই হবে। আমি বিশ্বাস জনতার শক্তির চেয়ে কোন শক্তিই বেশি হতে পাড়ে না৷’ গতকাল বৃহস্পতিবার ( ১০ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ফতুল্লার নম পার্কে ইউপি চেয়ারম্যান মেম্বারদের নিয়ে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন৷ সভায় তিনি বলেন, ত্বকী হত্যা নিয়ে দোকানদারি চলছে৷ তথ্য প্রমাণসহ

যতটুকু আমি জানি তা নিয়ে প্রেস কনফারেন্স করবো৷ নারায়ণগঞ্জে অথবা ঢাকায়৷ সঙ্গে সঙ্গে এই হত্যাকাণ্ডের বিচার তড়িৎ গতিতে যাতে হয় সেই দাবি করবো৷ ধৈর্যেরও সীমা আছে৷ কোর্টে গিয়া বিচার চান৷ খসড়া চার্জশিট বলতে কোনো চার্জশিট নাই৷ থাকলে সেটা দেখান না৷ তিনি বলেন, আমাদের কর্মীরা অনেকেই ক্ষেপে গেছেন। অনেকের রাগ উঠে গেছে। ধৈর্য্য ধরেন। এই সময়টা পর্যন্ত ওয়েট করেন। প্রেস কনফারেন্স করার পর আমাদের জানা তথ্য যখন বলে দিবো। যারা তদন্ত করেছিলো সেদিন, তাদের প্রধানও কিন্তু সাত খুনের আসামি। এখন কারাগারে রয়েছে। কার সাথে কথা বলেছিলো, কার সঙ্গে কন্ট্রাক্ট করেছিলো সব কিছু আমি জানি। শামীম ওসমান বলেন, সকল হত্যার বিচার চাই৷ ২০ জন হত্যা হয়েছে আমার, সেই বিচারও পাই নাই৷ পারভেজ গুম হয়েছে, তাকে পাই নাই৷ কারা পারভেজকে গুম করার পেছনে ছিলো জানতে চাইবো আমি৷ মাকসুদ হত্যার পেছনে কারা ছিলো জানতে চাইবো আমি৷ অত বেশি বাড়াবাড়ি করবেন না৷ আপনাদের পায়ের তলায় কতটুকু মাটি আছে আমি জানি৷ এসময় শামীম ওসমান আরও বলেন, এখানে ওসি সাহেব আছে৷ ওনাকেও আমি কাজে লাগাবো৷ আমার ইউএনও, ওসি আমরা টিম৷ উনি পুলিশ না৷ যেদিন পুলিশ হবে, বলবো আসসালামুআলাইকুম যান৷ ইউএনও ইউএনওগিরি দেখাবে, আসসালামুআলাইকুম যান৷ আমি শামীম ওসমান বদলি-ফদলির ইয়ে করি না৷ আপনি যান, ব্যাস যান৷ কিন্তু আমি জানি ওনাদের সম্বন্ধে৷ আমাদের একটা পরিবার হতে হবে৷ তিনি আরও বলেন, আগামী নির্বাচন ২০২৩ সালে যদি হয় এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আল্লাহ হায়াৎ দিলে তিনি প্রধানমন্ত্রী হবেন। ষড়যন্ত্র হচ্ছে, তবে এটা সরকার পরিবর্তনের জন্য নয়। বড় বড় পরাশক্তি খেলার মধ্যে আমরা পড়েছি। ভৌগোলিক অবস্থানের কারণে আমরা গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় আছি। এই জায়গাকে অনেকে নানাভাবে ব্যবহার করতে চায়। এদেশে অস্ত্র এসেছিল জাহাজ বোঝাই করে, এটা সত্য। করোনা না আসলে আমাদের জিডিপি দশের ওপর চলে যেত। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাস, নির্বাহী কর্মকর্তা রিফাত ফেরদৌস, ভাইস চেয়ারম্যান নাজিমউদ্দিন আহমদ, মহানগর আওয়ামী লী‌গের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ নিজাম, নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন সাজনু, নারায়ণগঞ্জ মহানগর কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান লিটন, কাশিপুর ইউপি চেয়ারম্যান এম সাইফউল্লাহ বাদল, বক্তাবলী ইউপি চেয়ারম্যান এম শওকত আলী, এনায়েতনগর ইউপি চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান, গোগনগর ইউপি চেয়ারম্যান ফজর আলী, ফতুল্লা ইউপি চেয়ারম্যান লুৎফর রহমান, কুতুবপুর ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুল আলম সেন্টু, ফতুল্লা থানার অফিসার ইনচার্জ রকিবুজ্জামান, জেলা পরিষদের সদস্য জাহাঙ্গীর আলমসহ ওয়ার্ড মেম্বর ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ।

Related Articles

Back to top button