Uncategorized

শাস্তি পেলেন হাসান আলী

টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশকে ৪ উইকেট হারিয়েছে পাকিস্তান

ক্রিকেট দল। বল হাতে ২২ রানে ৩ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরার পুরস্কার জিতেছিলেন

পাকিস্তানের পেসার হাসান আলি। তবে অখেলোয়াড়সুলভ আচরণে শাস্তি পেলেন তিনি। বাংলাদেশের ব্যাটার নুরুল হাসান সোহানের সঙ্গে ‘অখেলোয়াড়সুলভ’ আচরণ করেন পাকিস্তানি পেসার। সে কারণে শাস্তি হিসেবে তাকে তিরস্কার করেছে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। এছাড়া তার নামের পাশে এক ডিমেরিট পয়েন্ট যোগ হয়েছে। ম্যাচ শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ আগেই বিবৃতির মাধ্যমে বিষয়টি জানিয়ে ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থা (আইসিসি)। হাসানের বিরুদ্ধে আইসিসির কোড অব কন্ডাক্টের লেভেল ওয়ান লঙ্ঘনের অভিযোগ আনা হয়েছে। এদিকে প্রথম ম্যাচে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ওভার শেষ করতে না পারায় জরিমানা গুনতে হচ্ছে বাংলাদেশকে। স্লো ওভার

রেটের অভিযোগ এনে ম্যাচ ফি’র বিশ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছে। দুটি শাস্তি আরোপ করেছেন আইসিসির এলিট প্যানেলের ম্যাচ রেফারি নাইমুর রশিদ। হাসান ও বাংলাদেশের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ শাস্তি মেনে নিয়েছেন। তাই কোনো আনুষ্ঠানিক শুনানির প্রয়োজন হয়নি। লেভেল ওয়ান ভঙ্গের সর্বনিম্ন শাস্তি আনুষ্ঠানিক তিরস্কার এবং সর্বোচ্চ শাস্তি ম্যাচ ফির ৫০ শতাংশ জরিমানার সঙ্গে একটি বা দুটি ডিমেরিট পয়েন্ট। আগামী ২৪ মাসের মধ্যে চার ডিমেরিট পয়েন্ট পেলে নিষিদ্ধ হতে পারেন হাসান। একটি টেস্ট, দুটি ওয়ানডে ও দুটি টি-টোয়েন্টিতে দলের জার্সিতে দেখা যাবে না তাকে। এদিকে আজ পাকিস্তানের বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। এই ম্যাচে প্রথম দুই ওভারেই দুই উইকেট হারানোর ব্যাট হাতে ক্রিজে ছিলেন আফিফ হোসেন ধ্রুব। তৃতীয় ওভারে শাহিনের মুখোমুখি হয়ে প্রথম বলেই ফাইন লেগ দিয়ে ছক্কা মেরেছিলেন আফিফ হোসেন ধ্রুব। সেটি হয়তো পছন্দ হয়নি পাকিস্তানের বাঁহাতি পেসার শাহিন শাহ আফ্রিদির। ঠিক পরের বলে আলতো স্ট্রেইট ড্রাইভ করেন আফিফ। ফলো থ্রু-তে সেই বলটি ধরেই আফিফের গায়ে ছুঁয়ে মারেন শাহিন। যা আঘাত করে আফিফের পায়ে অরক্ষিত অংশে। টিভি রিপ্লে’তে দেখা গেছে, শাহিন থ্রো করার আগে পপিং ক্রিজের ভেতরেই ছিলেন আফিফ। তার মধ্যে রান নেওয়ার কোনো ইচ্ছাও ছিল না। পুরোপুরি অযথাই সেই থ্রো-টি করেছেন শাহিন। এরপরই ব্যাথায় কিছুক্ষন পরে থাকতে দেখা যায় আফিফকে। পরে ফিজিওর সাহায্য নিয়ে সুস্থ হয়ে উঠে আবারও ব্যাটিং শুরু করেন তিনি। এদিকে প্রথম ম্যাচে হারের পর এই ম্যাচেও একই একাদশ নিয়ে মাঠে নেমেছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল।

Related Articles

Back to top button