Uncategorized

বেইলি রোডে রিকশাকে চাপা দেয়া কিশোর চালক ও তার মা আটক

রাজধানীর বেইলি রোডে বেপরোয়া গতিতে ছুটে আসা প্রাইভেট কারের

ধাক্কায় গুঁড়িয়ে যায় একটি রিকশা। এ সময় রিকশার যাত্রী ফখরুল হাসানের

কোলে থাকা ছয় মাসের একটি শিশু দূরে ছিটকে পড়লে তার পা ভেঙে যায়। হাত ভেঙেছে ফখরুলেরও। শুক্রবার বিকেলের এ ঘটনায় আহত হয়েছেন রিকশার চালকও। ফুটপাতে দাঁড়িয়ে ভিডিও করা এক ব্যক্তির ক্যামেরায় ধরা পড়েছে দুর্ঘটনার ফুটেজ। পরে এই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের বিভিন্ন গ্রুপে ছড়িয়ে পড়েছে। এ ঘটনায় অপ্রাপ্তবয়স্ক চালক তাসকিন ও তার মা সুমাইয়াকে চুয়াডাঙ্গা থেকে আটক করেছে তেজগাঁও বিভাগ পুলিশ। জানা গেছে আটক তাসকিন রাজধানীর উইলস লিটল ফ্লাওয়ার

স্কুলের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী। চুয়াডাঙ্গা ও মেহেরপুর পুলিশের সহায়তায় ভোরে তাদের আটক করা হয় এবং প্রাইভেটকারটি জব্দ করা হয়। আটক দুজনকে ঢাকায় আনা হচ্ছে। এ ঘটনায় তাসকিনের বাবা ও বড় ভাইকে হাতিরঝিল থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। রমনা ট্রাফিক বিভাগের সহকারী কমিশনার মো. রেফাতুল ইসলাম বলেন, ‘গতকাল বিকেলে বেইলি রোডে একটি প্রাইভেট কার অস্বাভাবিক গতিতে ছুটে এসে একটি রিকশাকে ধাক্কা দেয়। এতে রিকশাটি গুঁড়িয়ে যায়। চালক, যাত্রী ও যাত্রীর কোলে থাকা ছয় মাসের শিশু আহত হয়। তবে রিকশাটিকে ধাক্কা দিয়ে প্রাইভেট কারটি নিয়ে চালক পালিয়ে যায়।’ ঘটনাস্থলের পাশে থানার পুলিশের একটি গাড়িও ছিল। তারা আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায় এবং বেপরোয়া গাড়িটিকে ধরারও চেষ্টা করে। তবে চালক তাদের ফাঁকি দিতে সক্ষম হন।

Related Articles

Back to top button